रबिंद्र नजरुल संध्या के साथ कुल 83 युनिट रक्त संग्रहित, मलिंचा सुकांतपल्ली उन्नयन समति व भगत सिंह शतवार्षिकी कमेटि ने किया आयोजन 

38
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

 

मलिचा सुकांतपल्ली उन्नयन समिति की ओर से मां भवतारिणी मंदिर प्रांगण में आयोजित रक्तदान शिविरमें कुल 43 लोगों ने रक्तदान किया।

इस अवसर पर बतौर अतिथि चेयरपर्सन क्लयाणी घोष, पार्षद परमिता घोष, दीपक दासगुप्ता व अन्य उपस्थित थे।

तापस सर्वज्ञ ने बताया कि समिति की ओर से स्वास्थय परीक्षण शिविर का आयोजन किया जाता है व मंदिर प्रागण में पूजा भव्य तरीके से मनाई जाती है।

इस अवसर पर रविंद्र व नजरुल संध्या का भी आयोजन किया गया जिसमें कलाकारों ने प्रस्तुति दी.

 

भगत सिंह शतवार्षिकी कमेटि की ओर से रक्तदान  शिविर का आयोजन

भगत सिंह शतवार्षिकी कमेटि की ओर से तालबगीचा मुक्तिसंघ लाईब्रेरी प्रांगण में आयोजित 13वां रक्तदान शिविर में कुल 40 लोगों ने रक्तदान किया जिसमें6 महिलाएं शामिल थी। इस अवसर पर रबिंद्र व नजरुल संध्या का भी आय़ोजन किया गया।

 

মালিঞ্চ সুকান্তপল্লী উন্নয়ন সমিতি এবং ভগত সিং শতবর্ষী কমিটি আয়োজিত রবীন্দ্র নজরুল সন্ধ্যার সাথে মোট ৮৩ ইউনিট রক্ত ​​সংগ্রহ

 

মা ভবতারিণী মন্দির প্রাঙ্গণে মালিচা সুকান্তপল্লী উন্নয়ন সমিতি আয়োজিত রক্তদান শিবিরে মোট ৪৩ জন রক্তদান করেন। এই অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চেয়ারপারসন কল্যাণী ঘোষ, কাউন্সিলর পারমিতা ঘোষ, দীপক দাশগুপ্ত প্রমুখ।

 

তাপস সর্বজ্ঞ বলেন, কমিটি কর্তৃক স্বাস্থ্য পরীক্ষা শিবিরের আয়োজন করা হয় এবং মন্দির প্রাঙ্গণে জমকালোভাবে পূজা উদযাপন করা হয়। এ উপলক্ষে রবীন্দ্র ও নজরুল সন্ধ্যারও আয়োজন করা হয় যাতে শিল্পীরা পরিবেশন করেন।

 

ভগৎ সিং শতবার্ষিকী কমিটি’র উদ্যোগে রক্তদান

 

ভগৎ সিং শতবার্ষিকী কমিটি’র উদ্যোগে গ্রীষ্মকালীন রক্ত সংকটকে সামনে রেখে ১৩ তম বর্ষ স্বেচ্ছায় রক্তদান শিবির অনুষ্ঠিত হয় তালবাগিচা মুক্তিসংঘ গ্রন্থাগার প্রাঙ্গনে। ৬জন মহিলাসহ মোট ৪০জন রক্তদান করেছেন। কমিটির সম্পাদক জয়ন্ত দাস এই প্রচন্ড তাপদাহ উপেক্ষা করে যে সমস্ত রক্তদাতা রক্ত দিয়েছেন তাদের সকলকে অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন খড়্গপুর মহকুমা হাসপাতালের ব্লাড ব্যাঙ্কের চিকিৎসক এবং টেকনেশিয়ানবৃন্দদের।

সন্ধ্যাকালীন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে এলাকার শিল্পিবৃন্দদের পরিবেশনায় কবিতায়, গানে নাচে নাটকে বিশ্বকবি রবীন্দ্র নাথ ঠাকুর এবং বিদ্রোহ কবি নজরুল ইসলামকে শ্রদ্ধায় স্মরণ করা হয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বলাকা নৃত্যগোষ্ঠী এবং স্ম্রুতি নৃত্য একাডেমীর নৃত্য পরিবেশন করেন। এছাড়াও রবীন্দ্রনাথের প্রতি স্বরচিত কবিতা আবৃতি করেন বিশিষ্ট কবি অরূপ গোস্বামী, সংগীত পরিবেশন করেন চন্দন ভট্টাচার্য এবং নজরুল সংগীত শিল্পি শংকর ব্যানার্জী।

 

Advertisement
Advertisement

For Sending News, Photos & Any Queries Contact Us by Mobile or Whatsapp - 9434243363 //  Email us - raghusahu0gmail.com