केन्द्र सरकार की विद्युत बिल-22 नहीं भा रहा ऑल इंडिया इलेक्ट्रिसिटी कंज्यूमर्स एसोसिएशन (AIECA) को, ABECA ने जनविरोधी बता मनाया काला दिवस

229
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

 

ऑल इंडिया इलेक्ट्रिसिटी कंज्यूमर्स एसोसिएशन (AIECA) संसद में पारित किए जा रहे नए विद्युत बिल के प्रति  नाराजगी जाहिर की है।  मेदिनीपुर शहर स्थित जिलाशासक दफ्तर के निकट खुदीराम मोड पर बिल की प्रतिलिपि जलाकर ABECA ने विरोध प्रकट किया . ऐसी प्रतिवाद सभा राज्य के विभिन्न जिलों व ब्लाकों के दफ्तर के निकट की गई और इस ‘काला दिवस’ कहकर संबोधित किया . तत्पश्चात् खुदीराम मोड़ से जुलुस की शक्ल में फकीर कुआं चौक तक जाकर ‘ विद्युत कार्यालय के करीब विरोध सभा की गई .

সারা ভারত কালা দিবস এর ডাক দেয় অল ইন্ডিয়া ইলেকট্রিসিটি কনজিউমারস অ্যাসোসিয়েশন (AIECA)। আজ সংসদে জন বিরোধী বিদ্যুৎ বিল -২০২২ পেশ করে কেন্দ্রীয় সরকার। ভারতবর্ষের রাজ্যে রাজ্যে আজ কালা দিবস পালিত হয়। হয় বিক্ষোভ ,অবরোধ ও বিদ্যুৎ বিলের প্রতিলিপি পোড়ানো। অল বেঙ্গল ইলেকট্রিসিটি কনজিউমারস অ্যাসোসিয়েশন (ABECA) এর পক্ষ থেকে এরাজ্যের জেলায় জেলায়, জেলা শাসক, মহকুমায় ও ব্লকে বিক্ষোভ হয়। মেদিনীপুর এ জেলা শাসক দপ্তরের সামনে বিক্ষোভ দেখান বিদ্যুৎ গ্রাহকরা।তার আগে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহর পরিক্রমা করে। DM দপ্তরের সামনে ক্ষুদিরাম মোড়ে পোড়ানো হয় প্রতিলিপি। অগ্নি সংযোগ করেন ABECA এর রাজ্য সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য চণ্ডী চরণ হাজরা। চলে বিক্ষোভ সভা। ক্ষুদিরাম মোড়ে কিছুক্ষণ অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। বক্তব্য রাখেন চণ্ডীবাবু সহ দীপক পাত্র, অশোক ঘোষ প্রমুখ। সেখান থেকে মিছিল যায় ফকির কুয়াঁ সংলগ্ন ZM, RM, DM, SM বিদ্যুৎ দপ্তরে। সেখানেও চলে বিক্ষোভ। চণ্ডীবাবু বলেন এই কালা বিল আইনে পরিণত করতে উঠে পড়ে লেগেছে বিজেপি সরকার। বিদ্যুৎ ব্যবস্থাকে সম্পূর্ণ রূপে কর্পোরেটদের হাতে তুলে দিতে ২০২০ সাল থেকে লকডাউনের সুযোগ নিয়ে চেষ্টা করে যাচ্ছে মোদী বাহীনি। বিদ্যুতের মত অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা ক্ষেত্রকে কর্পোরেটদের লুটের মৃগয়া ক্ষেত্রে পরিণত করছে। আজ যে সর্বনাশা বিল সংসদে পেশ করা হচ্ছে, যা তারা আইনে পরিণত করবে , এর ফলে দেশের গরীব মধ্যবিত্ত ঘরে নেমে আসবে নিকষ কালো অন্ধকার। কার্যত বিদ্যুৎ ব্যবহার করতে পারবে না। সেই সঙ্গে ভয়াবহ মূল্যবৃদ্ধির আগুনে ঘি পড়বে। ভারতবাসীর কাছে আজ কালো দিন। ভয়াবহ মাশুল বৃদ্ধির সাথে সাথেই বিদ্যুৎ ব্যবস্থার গণতান্ত্রিক রীতি নীতির কোন বালাই থাকবে না। থাকবে না গ্রাহকদের কোনো অধিকার। বিদ্যুৎ কর্মচারী ও ইঞ্জিনিয়ার্স দের ও কোনো নিরাপত্তা থাকবে না। এমনই এক ভয়ঙ্কর বিলের বিরুদ্ধে লাগাতার প্রতিরোধ আন্দোলন চলছে।

কালা দিবসের মধ্য দিয়ে তা আরও তীব্র করার আহ্বান জানাচ্ছি আমরা। আগামী দিনের সেই লড়াইয়ে সর্বস্তরের গ্রাহক সমাজ সামিল হোন।”
জেলার বেলদাতেও বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিলিপি পোড়ানো হয়। অগ্নি সংযোগ করেন ABECA এর রাজ্য সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য বিদ্যাভূষণ দে। পিংলা, সবং, খাকুড়দা, এ ও কালা দিবস পালিত হয়।

Advertisement
Advertisement

For Sending News, Photos & Any Queries Contact Us by Mobile or Whatsapp - 9434243363 //  Email us - raghusahu0gmail.com